শিক্ষাবৃত্তি বা স্কলারশিপ কি? সবাই পাবে ১০০০০ টাকা! মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক টাকা পেতে কত নম্বর লাগবে?

shiksha britti scholarship শিক্ষাবৃত্তি স্কলারশিপ মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক

শিক্ষাবৃত্তি বা স্কলারশিপ (Shiksha Britti / Scholarship মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক) হল এমন একটি আর্থিক সাহায্য যা শিক্ষার জন্য দেওয়া হয়। এটি ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষার খরচ বহন করতে সাহায্য করে। শিক্ষাবৃত্তি বিভিন্ন ধরনের হতে পারে, যেমন সম্পূর্ণ বৃত্তি, আংশিক বৃত্তি, ভর্তি বৃত্তি, কৃতিত্ব বৃত্তি, আর্থিক প্রয়োজনীয়তা বৃত্তি, ইত্যাদি।

   

ছাত্র-ছাত্রীদের মনে অনেকেই প্রশ্ন থাকে যে কত নম্বর পেলে তারা স্কলারশিপ এর জন্য যোগ্য হবে বা তারা যদি 50 শতাংশ নম্বর পায় বা ফাস্ট ডিভিশন পায় বা লেটার মার্কস পায়, তাদের জন্য কি কি স্কলারশিপ বা শিক্ষাবৃত্তি উপলব্ধ রয়েছে এবং তারা এগুলির ব্যাপারে কোথা থেকে আবেদন করতে পারবে।

তাদের জন্যই আজকের পোস্টটি যেখানে বিস্তারিত তথ্য সহ তাদের সম্পূর্ণ গাইড করা হবে যে কি কি স্কলারশিপ উপলব্ধ রয়েছে এবং তারা যদি ভালোভাবে পড়াশোনা করে তাদের বাড়ি থেকে কোন খরচ লাগবে না। সমস্ত পড়াশুনার খরচ তারা স্কলারশিপ থেকেই পেয়ে যাবে!

শিক্ষাবৃত্তি বা স্কলারশিপ 2023-24 মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক

পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষাবৃত্তির জন্য অনেকগুলি সরকারি এবং বেসরকারি সংস্থা রয়েছে।

সরকারি সংস্থাগুলির মধ্যে রয়েছে:

  • পশ্চিমবঙ্গ সরকার
  • ভারত সরকার
  • ন্যাশনাল স্কলারশিপ পোর্টাল।

বেসরকারি সংস্থাগুলির মধ্যে রয়েছে:

  • বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
  • বিভিন্ন কর্পোরেশন বা প্রাইভেট কোম্পানি
  • বিভিন্ন দাতব্য সংস্থা বা এনজিও।

স্কলারশিপ পেতে কত নম্বর বা যোগ্যতা দরকার?

ছাত্রছাত্রীরা শিক্ষাবৃত্তির জন্য আবেদন করতে হলে তাদের অবশ্যই নিম্নলিখিত যোগ্যতা পূরণ করতে হবে:

  • তারা অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • নির্দিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা নির্দিষ্ট বিষয়ে পড়াশোনা করতে ইচ্ছুক হতে হবে।
  • তাদের অবশ্যই নির্দিষ্ট যোগ্যতা অর্জন করতে হবে, যেমন নির্দিষ্ট গ্রেড পয়েন্ট, নির্দিষ্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া, ইত্যাদি।

বিশেষভাবে বলা প্রয়োজন, ৬০ শতাংশ নম্বর থাকলেই ছোটখাটো স্কলারশিপ পাওয়া যাবে, কিন্তু ভালো স্কলারশিপের টাকা পেতে অবশ্যই ৭৫%-এর উপরে নম্বর পেতে হবে এবং বিশেষ ক্ষেত্রে লেটার মার্কস (৮০%) থাকা প্রয়োজন

অবশ্যই পড়ুন: WB Scholarship: ছাত্র-ছাত্রীরা ১০০০০ টাকা পাবেই, দেখে নিন বর্তমানে যেসব স্কলারশিপে আবেদন চলছে!

কিভাবে স্কলারশিপের টাকা পাবে?

ছাত্রছাত্রীরা শিক্ষাবৃত্তি পেতে হলে নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করতে পারেন:

  1. শিক্ষাবৃত্তির জন্য আবেদন করার সময়সীমা সম্পর্কে জানতে হবে।
  2. আবেদন করার জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র সংগ্রহ করতে হবে।
  3. আবেদনপত্রটি সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে।
  4. আবেদনপত্রটি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে হবে।

ছাত্রছাত্রীরা শিক্ষাবৃত্তির জন্য আবেদন করার জন্য বিভিন্ন সংস্থার ওয়েবসাইট বা অফিসে যোগাযোগ করতে পারেন।

শিক্ষাবৃত্তি কীভাবে পড়াশোনায় সাহায্য করে?

শিক্ষাবৃত্তি ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনায় বিভিন্নভাবে সাহায্য করে। এর মধ্যে রয়েছে:

  • শিক্ষার খরচ বহন করা সহজ হয়: শিক্ষাবৃত্তি ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষার খরচ বহন করতে সাহায্য করে। এর ফলে তারা শিক্ষার জন্য অর্থের অভাবে পড়াশোনা থেকে পিছিয়ে পড়তে হয় না।
  • উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ পাওয়া যায়: শিক্ষাবৃত্তি ছাত্রছাত্রীদের উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ করে দেয়। এর ফলে তারা তাদের জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধি করতে পারে এবং তাদের ক্যারিয়ারের সুযোগ বৃদ্ধি করতে পারে।
  • পড়াশোনায় মনোনিবেশ করা সহজ হয়: শিক্ষাবৃত্তি ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনায় মনোনিবেশ করতে সাহায্য করে। এর ফলে তারা তাদের পড়াশোনায় ভাল ফলাফল অর্জন করতে পারে।

কেন্দ্র সরকারের ন্যাশনাল স্কলারশিপ! ছাত্রছাত্রীরা পাবে ৫০০০০ টাকা, আবেদন পদ্ধতি জানুন

শিক্ষাবৃত্তি ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনায় একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। শিক্ষাবৃত্তি হল ছাত্রছাত্রীদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ আর্থিক সাহায্য। এটি ছাত্রছাত্রীদের উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ করে দেয় এবং তাদের পড়াশোনায় মনোনিবেশ করতে সাহায্য করে। তাই, পশ্চিমবঙ্গের ছাত্রছাত্রীদের অবশ্যই শিক্ষাবৃত্তির সুযোগগুলি সম্পর্কে জানা উচিত এবং সেগুলির জন্য আবেদন করা উচিত।

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপটেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হোন -

Join Group

Telegram